ঈদ আনন্দের নামে বেহায়াপনা ও অপসংস্কৃতি বন্ধ করা হোক

সম্পাদকীয় >>

ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি । তার মানে বেহায়াপনার মাধ্যমে সমাজ তথা ধর্ম বিরোধী কার্যকলাপ সংঘটিত হউক এটি কারো কাম্য নয়।কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয়, ইদানিং কিছু সংখ্যক উঠতি বয়সী উচ্ছৃঙ্খল তরুণ ও যুবকদেরকে ঈদের দিন থেকে শুরু করে পরবর্তী ২/৩ দিন পর্যন্ত ঈদ আনন্দের নামে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন এলাকায় নছিমন , করিমন ও ভটভটির মতো গাড়িতে চড়ে উচ্চৈ:স্বরে সাউন্ড সিস্টেম বাজিয়ে অস্বাভাবিক আনন্দ-ফূর্তিতে মেতে উঠতে দেখা যায়। এই উঠতি বয়সের যুবক ও তরুণরা সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ কাউকেই তোয়াক্কা না করে বেপরোয়াভাবে তারা এসব কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে । বিশেষকরে তারা গ্রামাঞ্চলের বিভিন্ন অলি- গলিতে প্রবেশ করে নাচ-গান ও অশালীন অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করে যা ইভটিজিং এর আওতাভূক্ত।তাছাড়া উচ্চৈ:স্বরে সাউন্ড সিস্টেম বাজানোর কারণে শব্দদূষণও ঘটে থাকে । যুবকদের এসব বেহায়াপনা ও সমাজ বিরোধী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ না করার কারণে বছরের পর বছর ক্রমান্বয়ে বেড়ে চলেছে এসব কর্মকান্ডের মাত্রা , রূপ নিচ্ছে অপসংস্কৃতিতে এবং পরিনত হচ্ছে সামাজিক ব্যাধিতে।অপরদিকে , ইসলাম ধর্মও এসব অপসংস্কৃতিকে বৈধতা দেয় নি।সবকিছু মিলিয়ে যুবকদের এসব কর্মকান্ড তাদেরকে বিপথে পরিচালিত করছে, সমাজে অপরাধের মাত্রা বৃদ্ধি করছে , সামাজিক ও নৈতিক অবক্ষয় ঘটছে । ভবিষ্যত প্রজন্মকে এসব অপসংস্কৃতি ও সামাজিক অপরাধ থেকে মুক্ত করতে হলে এবং সামাজিক ও ধর্মীয় মূল্যবোধ বৃদ্ধি করতে হলে এখন থেকেই এসব কর্মকান্ড বন্ধ করা একান্ত জরুরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *