২০ ঘন্টার ব্যবধানে ঝিনাইদহে মেডিকেল ছাত্রসহ নিহত তিন


জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ
২০ ঘন্টার ব্যবধানে ঝিনাইদহের বিভিন্ন উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় একজন মেডিকেলছাত্রসহ তিনজন নিহত হয়েছে। হরিণাকুন্ডু, ঝিনাইদহ সদর ও কোটচাঁদপুর উপজেলায় পৃথক এই দুর্ঘটনা ঘটে। হরিণাকুন্ডু উপজেলার পারদখলপুর নামক স্থানে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় শামসুজ্জামান দিপু (২১) নামে এক মেডিকেলের ছাত্র নিহত হন। নিহত দিপু উপজেলার দখলপুর গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে। তিনি ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস অধ্যয়নরত ছিলেন বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার সাধুহাটি তৈলটুপি সড়কের পারদখলপুর এলাকায় রাস্তার ওপর পড়ে থাকা গাছের সাথে ধাক্কা লাগলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানায়, দিপু হরিণাকুন্ডু উপজেলা শহর থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। ফেরার পথে আম্পানের প্রভাবে রাস্তার ওপর হেলেপড়া একটি গাছের সাথে ধাক্কা লেগে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ জিল্লুর রহমান মৃত ঘোষণা করেন। ডাঃ জিল্লুর রহমান জানান, হাসপাতালে আনার পথেই তার মৃত্যু হয়েছে। মাথায় ও বুকে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় দিপুর মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি জানান। হরিণাকুন্ডু থানার ওসি আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে হরিণাকুন্ডু থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। এদিকে কোটচাঁদপুরের গোবিন্দপুর গ্রামে মঙ্গলবার দুপুরে ভ্যান ও মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে মিলন (৫৫) নামে একজন জন নিহত হয়েছেন। তার বাড়ি যশোরের রুপদিয়া এলাকায়। তিনি হোসেন আলীর মেয়ে বিয়ে করে কোটচাঁদপুরের সুয়াদি গ্রামে ঘরজামাই থাকতেন। এদিকে ঝিনাইদহ-চুয়াডাঙ্গা মহাসড়কের হলিধানী বারো মাইল নামক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় বুধবার নিহত হয়েছেন চুয়াডাঙ্গার জিবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়া দৌলতপুর গ্রামের আকবর আলী। এ সময় আহত হন আলমসাধু চালক আন্দুলবাড়ীয়া দোহাটি গ্রামের রেজাউল ইসলাম। প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানান, সকালে একটি পিকআপের সাথে আলমসাধুর মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই আকবর আলী নিহত হন। ঝিনাইদহের ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার দিলিপ কুমার সরকার খবরের সত্যতা নিশ্চত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: