সানোফি’র বিদায়ের ঘন্টায় ১ হাজার পরিবারের পথে বসার আশঙ্কা

ক্রাইম পেট্রোল ডেস্ক : ফরাসি বহুজাতিক ওষুধ কোম্পানি সানোফির ১ হাজার পরিবার আজ পথে বসার দ্বারপ্রান্তে। একাধিক দেশীয় ও বিদেশি পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে জানা গেছে যে, বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান সানোফি বাংলাদেশ লিমিটেড বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম বন্ধ করার নির্দেশনায় এদেশের সানোফিতে কর্মরত এক হাজার পরিবার পথে বসার উপক্রম হয়েছে। ফরাসি কোম্পানি সানোফি এদেশে ব্যবসা গুটানোর ক্ষেত্রে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অকালে চাকরীচ্যুত হওয়ার কারণে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত থাকলেও ভারতীয় কান্ট্রি চেয়ার এবং এদেশীয় কিছু উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা তারা নিজেদের পকেট ভারী করার পায়তারায় এবং কিছু উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার আন্তরিকতার অভাবে এক হাজার পরিবার তাদের ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশংকা করছে। কিছুদিন পূর্বে কালেরকন্ঠ পত্রিকায় সানোফির পক্ষে বাংলাদেশের এম ডি মঈন উদ্দিন মজুমদার জানিয়েছেন, এদেশের বিপণনব্যবস্থা অনৈতিক। ওষুধ কোম্পানিগুলো তাদের ওষুধ চালানোর জন্য ডাক্তারদেরকে বড় অঙ্কের কমিশন ও উপহারসামগ্রী দিতে হয়, তবেই শুধু ডাক্তাররা রোগীদের ওই কোম্পানির ওষুধ প্রেসক্রাইব করে থাকেন। কিন্তু এ ধরনের মার্কেটিং সানোফির বৈশ্বিক নীতি অনুমোদন করে না। ডাক্তারদের ঘুষ দেওয়া ছাড়া এ দেশে মার্কেটিং হয় না। তাই তারা বাংলাদেশ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এভাবে ডাক্তারদেরকে দোষারোপ করায় সারা দেশের ডাক্তারদের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। এভাবে ডাক্তারদের দোষারোপ করে ব্যবসা গুটানোর সিদ্ধান্তে এদেশের ১ হাজার পরিবারেরর মধ্যে চরম হতাশা বিরাজ করছে এবং তাদের ন্যায্য অধিকার ও পাওনা থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশংকায় রয়েছে। ফলে এদেশের ১হাজার পরিবার পথে বসার দ্বারপ্রান্তে। এই বিষয়ে আমরা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ফরাসি রাষ্ট্রদূত, বিদেশি বিনিয়োগকারী শিল্প বণিক সমিতি এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কিছু কর্মকর্তা-কর্মচারী এ আবেদন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: