শ্রীলঙ্কা সফরে ৩-৪ টা প্রস্তুতি ম্যাচের সম্ভাবনা


মোঃ পারভেজ আলম, জেলা প্রতিনিধি, ঢাকাঃ

দীর্ঘ চার মাসের লম্বা বিরতি কাটিয়ে অনুশীলনে ফিরতে শুরু করেছে ক্রিকেটাররা। একের পর এক সিরিজ বাতিল সঙ্গে এশিয়া কাপ, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হওয়ায় চলতি বছর আর খেলাই ছিল না বাংলাদেশের।

স্থগিত হওয়া সিরিজগুলোর মাঝে ছিল শ্রীলঙ্কায় ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। দুই ক্রিকেট বোর্ডের প্রচেষ্টা আর শ্রীলঙ্কায় করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় আবারও আলোর মুখ দেখছে সিরিজটি এবং সাথে ৩টি টি২০ ম্যাচে আয়োজনের চেষ্টা চলছে।

বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা একক অনুশীলনের অনুমতি পেলেও লঙ্কান ক্রিকেটাররা খেলছে ঘরোয়া লিগ। বলা যায়, বেশ ভালোই প্রস্তুতি নিচ্ছে স্বাগতিকরা।

শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার আগে বাংলাদেশের ঘরোয়া লিগ শুরুর কোনো সম্ভাবনা নেই। তাই প্রস্তুতি ম্যাচও খেলা হচ্ছে না দেশে।

করোনা ঝুঁকি এড়ানো ও প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য শ্রীলঙ্কায় লম্বা বহর নিতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। আকরাম খানের ভাষ্যমতে দল হতে পারে ২০/২২ জনের।

তিনি বলেন, ‘দলের সদস্য সংখ্যাটা আমরা বাড়াবো। এটা হতে পারে ২০ থেকে ২২ জনের। কোভিড-১৯ যতটা সহজ মনে হচ্ছে ততটা সহজ না। অনেক ঝুঁকি আছে, আমাদের অনেক বিকল্প রাখতে হবে। কোচরা এসে ১ম আমাদের দেশে কোয়ারেন্টিনে থাকবে, এরপর অনুশীলন শুরু হবে। সবকিছু মিলিয়ে কঠিন, তারপরও আমরা আগে থেকে প্রস্তুতি নিয়ে নিচ্ছি যেন কোন ঝামেলায় না পড়ি।’

শ্রীলঙ্কায় প্রস্তুতি ম্যাচ নিয়ে তিনি বলেন, ‘সংখ্যাটা বেশি মনে হতে পারে। কিন্তু গত ৪/৫ মাস ক্রিকেটাররা কোন ম্যাচ খেলেনি, তাই শ্রীলঙ্কায় ওয়ার্ম আপ ম্যাচ খেলবো ৩-৪ টা। প্রয়োজনে ঐ খানে নির্বাচকরা চূড়ান্ত তালিকা দিবেন। কারণ আমাদের সেরা খেলোয়াড় নিয়েই দল গঠন করতে চাচ্ছি। আমাদের তেমন কিছু করার নেই, যেহেতু সবশেষ ৫-৬ মাস কোন খেলা ছিল না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: