মেঘনায় সার্কেল এএসপি’র নেতৃত্বে শিশু রিফান হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন, আসামী গ্রেফতার

 

মো. ইব্রাহিম খলিল, হোমনা, কুমিল্লাঃ

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার বৈদ্যনাথপুর গ্রামের শিশু রিফান (৫) হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন করেছে পুলিশ। শিশুটির লাশ উদ্ধারের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে হত্যার রহস্য উদঘাটন ও আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

হোমনা-মেঘনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফজলুল করিম জানান, মাছ ধরার বড়শির ছিপ তৈরির সময় দুষ্টুমি করছিল নিহত শিশু রিফান। তখন বিরক্ত হয়ে শাকিল ইট ছুড়ে মারলে তা রিফানের মাথায় লাগে। ওই আঘাতে মারা যায় রিফান। নিহত রিফান ওই গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী মো. শরীফুল ইসলামের ছেলে এবং বৈদ্যনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্র। শাকিল (২২) একই গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে।

উপজেলার বৈধ্যনাথপুর গ্রামের মালেশিয়া প্রবাসী শরিফ হোসেনের পাঁচ বছরের শিশু রিফানুল ইসলাম রিফান গত ১২ জানুয়ারি দুপুরে বাড়ির পাশে খেলাধুলা করতে গিয়ে নিখোঁজ হয় । অনেক খোঁজাখুঁজির পরও না পেয়ে শিশুটির মা রজনী বেগম বাদী হয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় মেঘনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

গত শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ওমরকান্দা ব্রিজ এলাকায় পুরোনো মেঘনা নদী থেকে ওই শিশুর অর্ধলগিত মরদেহ উদ্ধার করেছিলো পুলিশ। এর দশদিন আগে গত ১২ জানুয়ারি বাড়ির সামনে থেকে নিখোঁজ হয়েছিলো শিশুটি। সোমবার রাতে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার রসুলপুর এলাকা থেকে ঘাতক শাকিলকে গ্রেপ্তার করে মেঘনা থানা পুলিশ। এরপর থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে শাকিল পুরো হত্যাকাণ্ডের রহস্য পুলিশকে জানায়।

মেঘনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মজিদ বলেন, মামলাটি ছিলো একেবারেই ক্লু-লেস। এরপরও আমাদের সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফজলুল করিমের নেতৃত্বে আমরা হত্যার রহস্য উদঘাটন করতে নিরবিচ্ছিন্ন তদন্ত শুরু করি। তদন্তে প্রযুক্তির সহায়তাও নেওয়া হয়। সর্বশেষ আমরা খুনিকে শনাক্ত এবং গ্রেফতার করতে সক্ষম হই।

প্রসঙ্গত , এএসপি মো. ফজলুল করিম হোমনায় যোগদানের পর থেকে হোমনা-মেঘনায় চুরি, ডাকাতি, মাদক ও জুয়াসহ বিভিন্ন অপরাধ দমনে কঠোর অবস্থানে থেকে বিশেষ ভূমিকা পালন করে আসছেন। তিনি নিজে অভিযান চালিয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ডাকাত গ্রেফতার, চোরদের গ্রেফতারসহ চোরাই গরু ও চোরাই সিএনজি উদ্ধার এবং ক্লুলেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করে অপরাধীদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছেন। এছাড়াও তিনি করোনা ভাইরাসের পাদুর্ভাবের শুরু থেকে হোমনা-মেঘনার মানুষকে ঘরে ফেরানোর ক্ষেত্রে এবং ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অসহায় মানুষের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছেন।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: