বকশিগঞ্জে নববধূর আত্মহত্যা

 

আবু সায়েম মোহাম্মদ সা’-আদাত উল করীম: বিয়ের ৭ মাস পার না হতেই আত্মহত্যার পথ বেছে নিলো নূরানী বেগম (২০)। রোববার ১৮ জুলাই ২০২১ ভোরে পরিবারের অজান্তে বাড়ীর পাশে একটি আম গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। জামালপুর জেলার বকশীগঞ্জ পৌরসভার গোওয়ালগাঁও মধ্য পাড়া এলাকায় মেয়েটির বাবার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।ভেনগাড়ী চালক তার বাবা নূরনবী পেশায় একজন ভেন চালক। পার্শ্ববর্তী শ্রীরবদী উপজেলার মাধবপুর এলাকার আওয়াল মিয়ার ছেলে গার্মেন্টস শ্রমিক সোলাইমানের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। তিন দিন আগে নূরানী বেগম নিজ বাড়িতে আসে। আত্মহত্যার কিছুক্ষণ পর তার স্বামী গার্মেন্টস শ্রমিক সোলাইমান ঢাকা থেকে ঈদের ছুটিতে নূরানীদের বাড়ীতে আসে।

বকশীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট গণমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, কী কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে তা তদন্ত করা হচ্ছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: