নাগরপুর নেশাগ্রস্ত স্বামীর মারপিট ও অত্যাচারে গৃহবধু হাসপাতালে

নাগরপুর, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : নাগরপুর উপজেলার সহবতপুর ইউনিয়নের পাচইরতা গ্রামের গৃহবধু শ্রাবণী স্বামীর বেধড়ক মারধরের শিকার হয়ে নাগরপুর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

অমানবিক অত্যাচারের শিকার গৃহবধূ শ্রাবণী জানান, বিগত চার বছর যাবত তার সাথে আমি সংসার করে আসছি, আমার একটি ছেলে সন্তান আছে, আমি আমার স্বামীর সাথে প্রথম খুব ভালো ভাবেই সংসার করে আসছিলাম। কিন্তু পরবর্তীতে তার আচরণের অনেক পরিবর্তন হয় এবং আমাকে নানাভাবে অত্যাচার করতে থাকে ।

ইস্রাফিল -শ্রাবণী দম্পতির সংসার সম্পর্কে জানতে চাইলে শ্রাবণী জানান, আমার মত এত কষ্টের সংসার করা যে কোন মেয়ের জন্য কষ্টদায়ক। আমি চাই না এররকম অত্যাচারী স্বামীর সংসার করতে । আমি মনে করি, এরকম স্বামীর সংসার করার চেয়ে মৃত্যু আমার অনেক ভালো।

জানা গেছে, শ্রাবণীকে মাঝেমধ্যে অনেক অত্যাচার ও মারধর করে নেশাগ্রস্ত স্বামী ইস্রাফিল। সে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অজুহাতে শ্রাবণীর কাছে টাকা দাবি করে ইস্রাফিল। আজ ১৮/০১/২০২০ ইং রোজ শনিবার অনুমানিক সকাল ১১টার দিকে পাচইরতা গ্রামের গৃহবধূ শ্রাবণীকে অমানবিক অত্যাচার ও মারধরসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গরম শিক দিয়ে ছ্যাকা দেয় ও জখমের সৃষ্টি করে স্বামী মোঃ ইস্রাফিল মিয়া। আজ শ্রাবণী ইস্রাফিলের মারধর ও অমানবিক অত্যাচারে হাতের বিভিন্ন জায়গায় জখম নিয়ে অসুস্থ হয়ে নাগরপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন।

শ্রাবণী আরও জানান, এলাকার লোক কয়েকবার বসে এর সমাধান করার চেষ্টা করে কিন্তু কোনমতেই এর সমাধান আসে নাই। এই নিউজ লেখার আগ পর্যন্ত অভিবাবক পক্ষ নাগরপুর থানায় একটি অভিযোগ করতে যায় বলে জানায় গৃহবধু শ্রাবণী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: