দৌলতপুরে দু’দল ডাকাত ও পুলিশের ত্রিমুখী গুলাগুলিতে দুই ডাকাত নিহত : অস্ত্র ও গুলী উদ্ধার

রফিকুল ইসলাম : মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া-ডাংমড়কা সড়কের পার্শ্ববর্তী পেটকাটা ডহর মাঠে দুই দল ডাকাত ও পুলিশের মধ্যে ত্রিমুখী গোলাগুলির ঘটনায় মুফা (৪২) ও মাহাবুল (৪০) নামের ২ জন ডাকাত সদস্য নিহত এবং ২জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে । ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ২টি দেশীয় তৈরী এলজি বন্দুক, ৪ রাউন্ড গুলী ও ১টি রামদা উদ্ধার করেছে। 

নিহত মোফাজ্জেল হোসেন ওরফে  মুফা কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের গরুড়া গ্রামের মসের উদ্দিনের ছেলে এবং নিহত মাহাবুল হোসেন মথুরাপুর ইউনিয়নের কৈপাল গ্রামের আব্দুর রহহমানের ছেলে।  
কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি উপজেলার আদাবাড়ীয়া- ডাংমড়কা সড়কের পেটকাটা ডহর মাঠে দুই দল ডাকাতের মধ্যে গোলাগুলি চলছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে দৌলতপুর থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুই পাশ থেকে ডাকাতরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে প্রায় আধা ঘন্টা যাবত ত্রিমুখী বন্দুকযুদ্ধের পর ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পরবর্তী কালে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ গুরুতর আহত অবস্থায় ২ জনকে উদ্ধার করে দৌলতপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের ২ জনকে মৃত ঘোষণা করে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ২টি দেশীয় তৈরী এলজি বন্দুক, ৪ রাউন্ড গুলী ও ১টি রামদা উদ্ধার করেছে। এ সময় দৌলতপুর থানার এস.আই আসাদ হোসেন ও কনস্টেবল মো: জিয়া আহত হয়। গোলাগুলিতে নিহত ব্যক্তিদ্বয় চিহ্নিত ডাকাত সদস্য। তাদের বিরুদ্ধে ডাকাতি, ছিনতাইসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের মামলা রয়েছে। নিহত মুফা গাংনীর পীরতলা ক্যাম্পের পুলিশ কনস্টেবল আলাউদ্দিন হত্যা মামলার অন্যতম আসামী। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: