ডোমার মির্জাগঞ্জে ধর্ষণ করতে গিয়ে শিক্ষক শ্রীঘরে

আনিছুর রহমান মানিক,ডোমার(নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ
নীলফামারীর ডোমার মির্জাগঞ্জে ধর্ষণ করতে গিয়ে স্কুল শিক্ষক রতন শ্রীঘরে।
ঘটনাটি ঘটেছে, উপজেলার জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের মির্জাগঞ্জ মফিজপাড়া গ্রামে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, জোড়াবাড়ী ইউনিয়নের মাস্টারপাড়া গ্রামের আবুল হাচানের লম্পট পুত্র জোড়াবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শরীর চর্চ্চা শিক্ষক রতন আলী (৩০) তার স্ত্রী ২সন্তান রেখে উক্ত ইউনিয়নের মির্জাগঞ্জ মফিজপাড়া গ্রামের জৈনেক ব্যক্তির বিধবা স্ত্রী ৩ সন্তানের জননীকে বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় ধর্ষণ করতে গেলে এলাকাবাসী তাকে আটক করে বেঁধে রেখে পরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। গভীর রাত পর্যন্ত রফাদফা না হওয়ায় ওই বিধবা নারী রতন মাস্টারের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে-৯ (১) ধারায় মামলা নং-১৮, তারিখ-২১/০৬/১৯ দায়ের করে।

ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রতন মাস্টার একজন দুশ্চরিত্রের লোক, মামলার ভিত্তিতে তাকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক বলেন, রতন মাস্টার একজন লম্পট ব্যক্তি এর আগেও বেশ কয়েকবার এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। শিক্ষককে বলা হয় মানুষ গড়ার কারিগর, এ ধরনের ব্যক্তির জন্য শিক্ষক সমাজ আজ কলংকিত, তার শাস্তি হওয়া উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: