ডোমারে প্রধান সড়ক মেরামতে ধীরগতি, অন্য ৪টি সড়কের বেহাল দশা


আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি>>
ডোমার পৌর এলাকার প্রধান সড়কটি বিভিন্ন অযুহাত দেখিয়ে কয়েক মাস ধরে কচ্ছপ গতিতে মেরামতের কাজ করছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। এ জন্য ওই সড়কে সকল যান চলাচল বন্ধ হয়ে জনগণ চরম ভোগান্তিতে পড়েছে। অপরদিকে বিভিন্ন ভারী যান চলাচলের কারণে পৌর এলাকার আশপাশের ৪টি সড়ক নষ্ট হয়ে গেছে। অতিরিক্ত চাপের কারণে সড়কগুলোর কোথাও কোথাও হাঁটু সমান আবার কোন স্থানে এর চেয়েও বড় গর্ত হয়েছে। ভরা বর্ষা মৌসুমের বৃষ্টিতে গর্তগুলো পানিতে ভরে গেছে। এতে বুঝার উপায় নাই, কোথায় গর্ত আর কোথায় ভালো। প্রায়ই সময় ঘটছে দুর্ঘটনা। সড়কগুলো চলাচলের একেবারেই অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সড়কগুলোর সাথে তৈরী ড্রেনগুলোও ভেঙে যাচ্ছে। ছোট সড়কগুলোর দুই দিকে দুইটি গাড়ি এলে ওই সড়কে কয়েক ঘন্টা যানজট লেগে যাচ্ছে। এতে ডোমার পৌর এলাকার মানুষজনের দুর্ভোগ চরমে উঠছে।
জানা গেছে, ২০১৯ সালে নীলফামারী সড়ক ও জনপদ বিভাগ (সওজ) ডোমার থানা হতে বাসস্ট্যাণ্ড পর্যন্ত ১ কিলোমিটার সড়ক মেরামতের জন্য টেন্ডার আহবান করে। কাজটি হক এন্টার প্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান শুরু করে। টিকাদারী প্রতিষ্ঠান নিজের খেয়াল-খুশিমতো নির্ধারিত সময়ের চেয়ে অতিরিক্ত সময় নিয়ে কচ্ছপ গতিতে কাজ করছে। এতে ওই সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে বিকল্প সড়ক হিসেবে পাড়া-মহল্লার ছোট ছোট সড়কগুলো দিয়ে বিভিন্ন ভারী যানবাহন চলাচল করছে কয়েক মাস ধরে। চিকনমাটির মোড় থেকে স্টেশন হয়ে মুচির মোড়ের সড়কটি দিয়ে সবচেয়ে বেশি ভারী যানবাহন চলাচল করে বড় বড় গর্ত হয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে মানুষ। নীলফামারী মেইন সড়ক হতে এলএসডি-সাহাপাড়া হয়ে বাজার পর্যন্ত সড়কে অটোরিক্সা, মাইক্রো-বাস, ট্রাক্টর ও মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবাহন চলাচল করায় ড্রেনগুলো ভেঙে একেবারেই নষ্ট হয়ে গেছে। এ বিষয়ে পৌর এলাকার ভুক্তভোগি মানুষরা প্রধান সড়কটির মেরামত কাজ দ্রুত শেষ করে ক্ষতিগ্রস্ত অন্যান্য সড়কগুলো পুনরায় মেরামত করার জোর দাবি জানান।
এ বিষয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের প্রকৌশলী ইব্রাহীম জানান, পাথরের সংকটের কারণে, কাজটি যথা সময়ে শেষ করা সম্ভব হচ্ছে না। আগামী ৩০ জুলাইয়ের মধ্যে কাজটি শেষ করার আশা করেন তিনি।
নীলফামারী সড়ক ও জনপথ বিভাগ (সওজ) এর নির্বাহী প্রাকৌশলী মঞ্জুরুল করিম বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে লকডাউন এবং পাথর সংকটের কারণে কাজটি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ হয় নাই। কাজটিদ্রুত শেষ করার জন্য আমি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে বার বার তাগাদা দিচ্ছি।
এ বিষয়ে ডোমার পৌর মেয়র আলহাজ্ব মনছুরুল ইসলাম দানু ও কাউন্সিলর আক্তারুজ্জামান সুমন জানান, শহরের প্রধান সড়কটির মেরামতের কাজের জন্য যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে পৌর এলাকার অন্যান্য ছোট সড়কগুলো দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচল করছে। এর ফলে ওই সড়কগুলোর বেহাল অবস্থা হয়েছে। সাথে ড্রেনগুলোও ভেঙে গেছে। দ্রুত প্রধান সড়কটি মেরামত করে যানবাহন চলাচলে উন্মুক্ত করা না হলে, ছোট ছোট অন্যান্য সড়কগুলোর বাকি যেটুকু টিকে আছে সেইটুকুও নষ্ট হয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: