ডোমারে পৃথক পৃথক ভাবে পালিত হলো আ’লীগের ৭০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

আনিছুর রহমান মানিক, ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি>>
ভিন্ন কর্মসুচীতে নীলফামারীর ডোমারে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে পৃথক পৃথকভাবে উদযাপন করা হয়েছে আওয়ামীলীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী।

উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অধ্যাপক খায়রুল আলম বাবুলের নেতৃত্বে ডোমার উপজেলা শহরের নাট্য সমিতি মঞ্চে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হলেও সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহমেদের নেতৃত্বে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় ডোমার ডাকবাংলো মাঠে। এর আগে সকালে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয় পৃথক পৃথক ভাবে। বিকেলে দুই নেতার নেতৃত্বে সমাবেশ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান মঞ্চস্থ হয়। বিকেল ৫টায় ডাকবাংলো মাঠ থেকে উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদের নেতৃত্বে বনার্ঢ্য শোভাযাত্রা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় সেখানে ফিরে সমাবেশে মিলিত হয়। এতে ডোমার শহর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ময়নুল হক মনু, উপজেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনজুর আহমেদ ডন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আব্দুল মালেক সরকার, ছাত্রলীগের সভাপতি সব্য সাচি রায়, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মেহেরুন আক্তার পলিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বিকাল ৬ টায় উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অধ্যাপক খায়রুল আলম বাবুলের নেতৃত্বে ডোমার নাট্য সমিতি মঞ্চ থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় সেখানে ফিরে সমাবেশে মিলিত হয়। এতে বাংলাদেশ আ’মীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও ডোমার উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মনোয়ার হোসেন, উপজেলা সহ-সভাপতি এনায়েত হোসেন নয়ন, মঞ্জুরুল হক চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান সরকার বুলু, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আমিনুর ইসলাম রিমন, যুগ্ন আহবায়ক রফিকুজ্জামান রুবেল, গনেশ আগরওয়ালা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি এমদাদুল হক মাসুম, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ, যুব মহিলা লীগের সভাপতি আসমা সিদ্দিকা বেবী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃকিত অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন ডোমার প্রত্যাশা একাডেমী।

উপজেলা আ’লীগের সভাপতি খায়রুল আলম বাবুল বলেন, সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহমেদ সঠিক রাজনীতি করছেন না। তিনি বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। আ’লীগের বেশির ভাগ নেতা কর্মী আমাদের নেতৃত্বে
ঐক্যবদ্ধ রয়েছেন।

তবে এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ বলেন, উপজেলা আ’লীগের যে কমিটি হয়েছে সেটি আমি প্রত্যাখান করছি। আমি আহবায়ক কমিটি দাবি করবো। গেল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমাকে ও নৌকা প্রতিককে হারানোর জন্য শীর্ষ নেতারা প্রকাশ্যে ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলো কিন্তু এখানকার মানুষরা তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিক নৌকাকে বিজয়ী করেছেন। আমি মনে করি ,জনগণ এবং নেতা কর্মীরা আমার সাথে রয়েছে। এদিকে পৃথক পৃথকভাবে কর্মসুচী পালনে ডোমার থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমানের নেতৃত্বে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ছিলো সতর্ক অবস্থানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *