টেকনাফে লোকালয়ে খাবার খুঁজতে এসে হাতির প্রাণহানি

অনলাইন ডেস্ক : কক্সবাজারের টেকনাফে পাহাড় থেকে নেমে খাবার খুঁজতে এসে এক বন্য হাতি বৈদ্যুতিক সংযোগ লাইনে স্পৃষ্ট হয়ে মারা গেছে। বন বিভাগের সহায়তায় মৃত হাতিটি পুঁতে ফেলা হলেও বনভূমি নিধন এবং জীবজন্তুর খাদ্যের সঙ্কট হওয়ায় শঙ্কিত পরিবেশবাদীরা।

জানা যায়, গত ১২ জুন (শুক্রবার) ভোররাত ৩টারদিকে উপজেলার হ্নীলা পশ্চিম পানখালীর খন্ডা কাটা এলাকায় একটি বন্য হাতি খাদ্যের সন্ধানে পাহাড় থেকে লোকালয়ের দিকে যাওয়ার পথে খন্ডা কাটা গ্রামে মরিচ্যাঘোনা হতে টানা বৈদ্যুতিক লাইনের তারে জড়িয়ে হাতির শুঁড় আটকে যায়। তখন হাতির শব্দে এলাকাবাসীর ঘুম ভেঙ্গে যায়। ভোর হতে হাজারও মানুষ বিরাট হাতিটি দেখার জন্য ভিড় জমায়।

খবর পেয়ে টেকনাফ রেঞ্জ কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক আহমদের নেতৃত্বে বনবিভাগের একটি প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে ঊর্ধ্বতন মহলের সঙ্গে আলোচনা করে সন্ধ্যার দিকে পুঁতে ফেলা হলেও দাঁত দুটি দোলাহাজারা বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্কে সংরক্ষণের জন্য রাখা হয়েছে বলে টেকনাফ সহব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য আব্দুর রহমান হাশেমী নিশ্চিত করেন।

এদিকে স্থানীয়দের পাশাপাশি রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের ফলে বনভূমি উজাড় এবং অবৈধ দখলের কারণে বনজ সম্পদ কমে আসায় বণ্যপ্রাণিরা মূলত চরম খাদ্য সংকটে পড়ে। তাই উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে বন্য হাতির পাল নেমে এসে বসত-বাড়ি ও চাষাবাদের ক্ষয়ক্ষতি করে আসছে। বন্যপ্রাণি বাঁচিয়ে রাখতে পাহাড়ে প্রাণি খাদ্যের চাষাবাদ দরকার বলে সচেতন মহল মনে করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: