ঝিনাইদহে অটো রাইস মিলের দূষিত বর্জ্য ও পানিতে বাড়ি ছাড়া কয়েকটি পরিবার, হতাশ এলাকাবাসী

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ডাকবাংলা ত্রিমহনীর প্রাই সব অটো রাইস মিলের দূষিত বর্জ্য ফেলায় চরমভাবে পরিবেশ বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। অভিযোগ উঠেছে জোহান অটো রাইস মিল-১, ইফাদ অটো রাইস মিল এবং জোহান অটো রাইস মিল-২ এর শব্দ দূষণ ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। এছাড়া প্রায় সব অটো মিলের ময়লা দুর্গন্ধযুক্ত পানি, ধানের তুষ, ছাই ও মেশিনের বিকট শব্দে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে পুরো এলাকাবাসী। এ ব্যাপারে অটো মিল কর্তৃপক্ষের সাথে এলাকাবাসী কয়েক দফা বৈঠক করেও কোন সুরাহা হয়নি। ফলে পরিবেশের চরম বিপর্যয়ের মধ্যেই অটো রাইস মিলগুলোর আশে-পাশে পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করছেন।

জানা গেছে, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার উত্তর নারায়নপুর, মাগুরা পাড়া ও বাদপুকুরিয়া গ্রামের কয়েক শত পরিবার। বাড়িতে সব সময় হাটু পানি লেগে থাকায় ওই এলাকার কেয়ামত আলী, আবু তাহের, ইমান আলীসহ এমন মোট ৮-১০ টি পরিবার নিজ বাড়ি ফেলে রেখে অন্যাত্র ভাড়া বাড়িতে থাকে।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী আবু তাহের জানান, জোহান অটো রাইস মিলের পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় আজ আমার বাড়ি ফেলে চাতালে থাকতে হচ্ছে। আমার বাড়িতে সব সময় হাঁটু পানি লেগে থাকে। আমরা সবাই সুষ্ঠুভাবে জীবন যাপন করতে চাই। আরও বেশি সমস্যা পুকুর খনন করাতে। এদিকে আরও অভিযোগ উঠেছে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিশেষ করে অটো রাইস মিলের আশে-পাশের ইউনুস, ওমর আলী, আবু তাহের, ওসমান, রেজাউল, কেয়ামত আলী , বজলু, তাহাজদ্দি, ইমান, বাহার, খোলিল, সামেদ, রসুল, মিল কল মালিক সমিতির সভাপতি মোয়াজ্জেম প্রমুখ চাতালগুলোর পানির নিচে পড়ে থাকায় ক্ষুদে ব্যবসয়ীরা চরম বিপাকে আছেন।

এদিকে বাছাই অটো রাইস মিলের মালিক হাজী আরজান সাংবাদিকদের জানান, জোহান এগ্রো ফুড কোঃলিঃ এর অটো রাইস মিলের দুষিত পানিতে আমার চাতাল আজ পানির নিচে যেখানে কয়েক শত মণ ধানও আছে। তিনি আরও বলেন, তার অটোর পানি নিষ্কাশনের কোন ব্যবস্থা নেই। যতটুকু ছিলো তাতে আবার সে পুকুর খনন করে মাছ চাষ করছে। এদিকে আজ আমার অটোর ভেতর পানি, কখন যেনো বৈদ্যুতিক সমস্যায় পড়তে হয়। এর একটা সমাধান দরকার।

স্থানীয় ক্ষুদে ব্যবসায়ী আশাদুল ইসলাম বলেন, আমরা চরম দুরবস্থার মধ্যে বসবাস করছি, আমার চাতালে আজ পানি, আমি হাজী আরজান মিয়ার বাছাই অটোতে চাউল বাছাই করি, মিলে আমার কয়েক শত মণ চাউল আছে, তাও আবার সেগুলো জোহান অটো রাইচ মিলের পানিতে ভিজে যাচ্ছে, এর একটা সমাধান চাই।

এ বিষয়ে ত্রিমহনী মিল কল মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মোয়াজ্জেম মন্ডলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জোহান এগ্রো ফুড কোঃলিঃ এর অটোর পানি নিষ্কাশনের কোন ব্যবস্থা না থাকায় আমাদের এই দুর্ভোগ,আমরা আগামীকাল সমাধানের জন্য ভুক্তভোগীরা সবাই এক সাথে বসবো। যদি এটা সমাধান না হয় তাহলে আমরা সবাই মিলে ডিসি অফিসে এ বিষয়ে দরখাস্ত করবো।

মিল কল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জনাব আলতাফ মিয়া বলেন, এটা সমাধান করতে হবে।আসলে কারও জন্য কারও ক্ষতি হোক এটা আমরা চাই না। এ বিষয়ে আমরা সবাই আগামীকাল বসবো।

এ বিষয়ে সাগান্না ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন বলেন, অটোর আশে-পাশে যেসমস্ত চাতাল বা বাড়ি ঘর আছে সেগুলো দেখলে খুব কষ্ট লাগে, এর একটা সমাধান হওয়া উচিৎ।

এ বিষয়ে অপু বা জোহান অটো এগ্রো ফুড কোঃ লিঃ মালিক জনাব মোয়াজ্জেম মিয়ার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার অটোর পানি নিষ্কাশনের জায়গা আছে। আর মূল সমস্যা হলো পানি বের হবে কিভাবে সবাই পুকুর কেটে মাছ চাষ করছে। তাই পানি এখন আর বের হচ্ছে না। আমি এ বিষয়ে ঝিনাইদহ ডিসি অফিস ও ইউএনও অফিসে দরখাস্ত দিয়েছি। পারলে ইউএনওর কাছে জানতে পারেন।

এ বিষয়ে (ইউএনও) উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাম্মী ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না, ঠিক আছে জেনে ব্যবস্থা নিবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: