জামালপুর আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় সেই অধ্যক্ষ ছালামের ঘটনা তদন্তের নির্দেশ

জামালপুর প্রতিনিধি:
আন্তঃনগর তিস্তা ট্রেনের কেবিনের একটি কামরায় নিজ কলেজের প্রাক্তন এক ছাত্রীর সাথে ইসলামপুরের জে জে কে এম গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুছ ছালাম চৌধুরীর অসামাজিক কার্যকলাপের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা মাসিক আইন- শৃঙ্খখলা কমিটির সভার সভাপতি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক। ৯ ফেব্রুয়ারি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সভাকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভা সূত্রে জানা গেছে, সভায় অন্যান্য আলোচনার মধ্যে সম্প্রতি আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেস ট্রেনের কেবিনের কামরায় অধ্যক্ষ আব্দুছ ছালাম চৌধুরীর ওই ঘটনা নিয়েও আলোচনা করা হয়। এ নিয়ে সভার কয়েকজন সদস্যের বক্তব্য শোনার পর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক ওই ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেন। পরে তিনি ওই অধ্যক্ষের নৈতিকস্খলনজনিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইসলামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জে জে কে এম গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে কমিটি গঠন করে দ্রুত সময়ের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন।
৯ ফেব্রুয়ারি জামালপুর জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় অন্যান্যের মাঝে আলোচনায় অংশ নেন পুলিশ সুপার মো. দেলোয়ার হোসেন, সিভিল সার্জন চিকিৎসক গৌতম রায়, জামালপুর পৌরসভার মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি, মুক্তিযোদ্ধা সুজায়াত আলী ফকির, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মছিরুন নেছা, জেলা মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. শাহনেওয়াজ, জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও বাংলারচিঠিডটকম এর সম্পাদক জাহাঙ্গীর সেলিম, জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফজলে এলাহী মাকাম, তরঙ্গ মহিলা কল্যাণ সংস্থার নির্বাহী পরিচালক শামীমা খান প্রমুখ। সভা সঞ্চালনা করেন অতিরিক্ত জেলা হাকিম মো. তৌহিদ বিন সাদিক।
সভায় সাংবাদিক শেলু আকন্দের ওপর সন্ত্রাসী হামলায় দায়েরকৃত মামলাটি চাঞ্চল্যকর মামলা হিসেবে গ্রহণ করা, জামালপুর পৌরসভাধীন কম্পপুর এলাকায় বখাটের হাতে মা ও মেয়ের শ্লীলতাহানির ঘটনায় আসামিদের দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, রশিদপুর ইউনিয়নে এক মাদক ব্যবসায়ীর হাতে কিশোরী অপহরণের ঘটনা মামলা হলেও আসামি গ্রেপ্তার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ, রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী রাখার বিরুদ্ধে অভিযান, অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা, জামালপুর শেখ হাসিনা মেডি্যিাল কলেজের শিক্ষার্থীদের আবাসন সঙ্কট নিরসনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের গাফিলতি, জামালপুর সাবরেজিস্ট্রি কার্যালয় প্রাঙ্গণে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, জামালপুর-সরিষাবাড়ী রেলপথের ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থা দ্রুত সময়ের মধ্যে সমাধান করা, জামালপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি পরিবর্তন করা, মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণসহ জেলায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা এবং সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: