ছদকাতুল ফিতরের গুরুত্ব ও ফজীলাত

মাও: শামীম আহমেদ সাঁথিয়া পাবনা প্রতিনিধি

হযরত রাসুল (সা) বলেছেন, যদি কোন ব্যক্তির কাছে সাড়ে বাহান্ন ভরি রুপা অথবা সাড়ে সাত ভরি সোনা অথবা এর সমপরিমান অর্থ গচ্ছিত থাকে তাহলে তার ওপর সাদকাতুল ফিতর ওয়াজিব হবে। যদি কোন ব্যক্তি রোজা না রাখতে পারে তার ওপরেও সাদকাতুল ফিতর ওয়াজিত। কেননা হযরত রাসুল (সা) বলেন, সাদকাতুল ফিতর আদায়ের মাধ্যমে রোজার ভুলক্রটি ক্ষমা করে দেয়া হয়।  যদি কোন ব্যক্তি সাদকাতুল ফিতর ওয়াজিব হওয়ার পরও আদায় না করে তাহলে তার রোজা আসমান ও জমিনের মধ্যবর্তী স্হানে ঝুলান্ত অবস্হায় থাকবে অর্থাৎ তার রোজা মহান আল্লাহর দরবারে  কবুল হবে না। এছাড়াও হযরত রাসুল (সা) বলেছেন ,এমনকি ইদুল ফিতরের দিন সুবহে সাদিকের আগে কোন শিশু ভৃমিষ্ঠ হলে তার ওপরও সদকাতুল ফিতর আদায় করতে হবে।। কিন্তু যদি কোন ব্যক্তি মারা যায় তাহলে  তার সাদকাতুল ফিতর দিতে হবে না।।। সাদকাতুল ফিতর আদায়ের পরিমান গম এবং গমের আটা অর্ধ ছা পরিমান এবং যব কিংবা যবের আটা কিংবা খোরমা দ্বারা ফিতরা আদায় করিলে একছা পরিমান কিসমিস দ্বারা ফিতর করলে ইমাম আবু হানিফা (রহ) এক কওলের মতে অর্ধ ছা দিতে হবে। ছাহেবাইনদের মতে একছা পরিমান  ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: