চুয়াডাঙ্গায় অসহায় কৃষকের ধান কেটে দিল চুয়াডাঙ্গার কুতুবপুর ইউপি যুবলীগ


জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ
মহামারি করোনা ভাইরাসে দেশে যখন চরম শ্রমিক সঙ্কট দেখা দিয়েছে ঠিই সেই মুহূর্ত থেকেই চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের যুবলীগ সর্বদা অসহায় কৃষকদের সঙ্কটের কথা মাথায় রেখে ইউনিয়ন জুড়েই যুবলীগের সমস্ত সদস্যরা মাঠের পর মাঠ ঘুরে ঘুরে খুঁজে খুঁজে কৃষকদের ধান কেটে ঘরে তুলে দিচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় ১৬ই মে শনিবার ২০২০ ইং তারিখে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়নের জীবনা গ্রামের অসহায় কৃষক মুঙলা খাঁ’র তিন বিঘা জমির ধান কেটে দিল ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগ। শনিবার সকালে জেলা যুবলীগের আহবায়ক নঈম হাসান জোর্য়াদ্দার এর নেতৃত্বে ধান কাটায় অংশগ্রহণ করেন জেলা যুবলীগের সদস্য মোঃ মাসুম, সদর উপজেলার ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি মোঃ মিলন আলী বিশ্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম রিঙ্কু, ইউনিয়ন যুবলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ সোহাগ মিয়া, ইউনিয়ন অর্থ বিষয়ক সম্পাদক কদর আলী, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ মিস্টার আলী সহ যুবলীগের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

যুবলীগ সহ সভাপতি মিলন আলী বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেন, জীবনা গ্রামের কৃষক মুঙলা খাঁ’র জমির ধান পেকে গেছে কিন্তু তিনি শ্রমিকের অভাবে জমির ধান কাটতে পারছিলেননা। বিষয়টি তিনি চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আহবায়ক নঈম হাসান জোর্য়াদ্দারকে জানালে তার নেতৃত্বে সাথে সাথে শনিবার চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি মোঃ মিলন আলী বিশ্বাস ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম রিঙ্কুর সহযোগিতায় জীবনা গ্রামের মাঠে মুঙলা খাঁ’র তিন বিঘা জমির ধান কেটে দেন। ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের এই মানবিক কর্মকান্ডের জন্য তাদেরকে এলাকাবাসী ও মুঙলা খাঁ’র পরিবার অশেষ ধন্যবাদ জানান।

যুবলীগ সহ সভাপতি মিলন আলী বিশ্বাস সাংবাদিকদের বলেন, দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রভাবে জনজীবন স্থবির। মানুষ আতঙ্কের মধ্যে আছে। প্রতি বছর যে পরিমাণ ধান কাটার শ্রমিক বাহিরের জেলা থেকে আসতো এবার তুলনামূলক অনেক কম। শ্রমিক সংকটের কারণে কৃষকরা দুশ্চিন্তার মধ্যে রয়েছেন। অপরদিকে মাঝে মধ্যে ঝড়বৃষ্টি হচ্ছে। অসহায় কৃষকদের কষ্টের ফসল ঘরে তুলে দিতে আমরা সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছি। তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে মহামারি দুর্যোগে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর কড়া নির্দেশ রয়েছে। এজন্য আমরা সদর উপজেলার ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগ কৃষকের পাশে থেকে ধান কেটে তাদের ঘরে তুলে দিচ্ছি।

মিলন আলী বিশ্বাস জানান, মহামারি করোনায় যত দিন শ্রমিক সঙ্কট থাকবে, ততদিনই ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়নের ১৯টি গ্রামের সাধারণ মানুষের কল্যাণে আমাদের অর্থ্যাৎ ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। মহামারি করোনা ভাইরাসে শ্রমিক সঙ্কটে যুবলীগ নেতা নঈম হাসান জোর্য়াদ্দার এর পরামর্শক্রমে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের যুবলীগ সর্বদা অসহায় কৃষকদের সঙ্কটের কথা মাথায় রেখে ইউনিয়নের বিভিন্নস্থানে অসহায় ও গরীব কৃষকের ধান কাটা হচ্ছে এবং কৃষকের ধান কাটা শেষ না হওয়া পর্যন্ত ৩নং কুতুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগ কৃষকের পাশে আছে ও থাকবে বলে জানান সাংগঠনিক সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম রিঙ্কু।

এ ব্যাপারে জেলা যুবলীগের আহবায়ক নঈম হাসান জোর্য়াদ্দার সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় যেসব কৃষক শ্রমিক পাচ্ছেন না তাদের ধান কেটে ঘরে তুলে দেয়ার কার্যক্রম শুরু করেছি। আমাদের এই কার্যক্রম সর্বদা অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: