কুষ্টিয়ায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান : ৮ ইট ভাটায় ৪ লাখ টাকা জরিমানা

রফিকুল ইসলাম : সোমবার দিনব্যাপী কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কুষ্টিয়ার সহকারী পরিচালক সেলিমুজ্জামান এর নেতৃত্বে এক অভিযান পরিচালনা করে বিএসটিআই ।নির্ধারিত মাপের চেয়ে ছোট আকারের ইট তৈরী ও বিক্রয়ের দায়ে ৮ জন ইটভাটা মালিককে ৪লাখ টাকা জরিমানা করেছে। 

ইটভাটা গুলো- কুষ্টিয়া সদর উপজেলার জুগিয়া ভাটাপাড়া এলাকার আব্দুল রাজ্জাকের এমএফবি ব্রিকস, জুগিয়া এলাকার মাহবুব আলমের এমএসকে ব্রিকস, একই এলাকার শরিফুল ইসলাম খোকনের কেএইচ ব্রিকস, শাহাবুল আলমের সিক্স/পি ব্রিকস, সিহাব উদ্দিনের এনবিসি ব্রিকস, সিহাব উদ্দিনের এএসএসবি ব্রিকস, ইমাম আজাদের এমআইএইচ ব্রিকস ও আশরাফুল প্রামাণিকের কেএবি ব্রিকস। 
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে পরিবেশ অধিদপ্তরের ফিল্ড ইন্সপেক্টর ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়ার জাতীয় ভোক্তা অধিদপ্তর সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সেলিমুজ্জামান জানান, ইট তৈরীর জন্য বিএসটিআই নির্ধারিত একটি মাপ রয়েছে। প্রত্যেকটি ইটভাটাকে এই নির্ধারিত মাপ অনুসারে ইট তৈরি করতে হবে। বিএসটিআই নির্ধারিত ইটের মাপ হচ্ছে, দৈর্ঘ্য-২৪ সে.মি, প্রস্থ-১১.৫ সে.মি এবং উচ্চতা-৭ সে.মি। তবে দৈর্ঘ্যে +/- ৬ মি.মি, প্রস্থে +/- ৫ মি.মি. এবং উচ্চতায় +/- ২ মি.মি. কম/বেশি হতে পারে।কিন্তু অভিযুক্ত ইটভাটায় অভিযানকালীন নির্ধারিত মাপের উচ্চতার মাপ সঠিক না থাকায় ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৪৮ ধারা মোতাবেক ৮টি ইটভাটা মালিকদের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে মোট ৪ লাখ টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।
তিনি আরো জানান, জেলা প্রশাসক ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের দিক নির্দেশনায় এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: