কালীগঞ্জ বেজপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর আত্মহত্যা

ঝিনাইদ প্রতিনিধি ঃ
ঝিনাইদহ কালীগঞ্জে রানি খাতুন নামের এক স্কুল ছাত্রী গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। রানি কালীগঞ্জ বেজপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। মঙ্গলবার দুপুরে নিজ বাসায় আত্মহত্যা করে ওই ছাত্রী। সে মঙ্গলবার প্রতিদিনের ন্যায় স্কুলে আসে দ্বিতীয় ক্লাস হবার পরে সে শ্বাসকষ্টে অসুস্থ হলে ছুটি নিয়ে সে বাড়ি চলে যায়। বিকাল ৪ টার দিকে সে গলার ওড়না দিয়ে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করে। রানী খাতুন বেজপাড়া ৭ম শ্রেণিতে এবং তার বড় বোন বেজপাড়া ঐ স্কুলের ১০ শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। আত্মহত্যাকারী রানি খাতুন কালীগঞ্জ উপজেলার ভাটপাড়া গ্রামের আফান মোল্লার মেয়ে।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার এসআই আবুল খায়ের জানান, নিহত রানির বাবা পরের ক্ষেতে কামলার কাজ করে আর মা পরের বাড়িতে কাজ করে। মেয়েরা দু,বোনের মধ্যে রানি বাড়িতে মায়ের সাথে পারিবারিক কোন কাজ করতো না। আবার ঠিকমত স্কুলে যেতে চাইতো না। এ নিয়ে মঙ্গলবার বড় মেয়ে স্কুলে যায় কিন্তু রানি স্কুলে না গিয়ে বাড়িতে শুয়ে থাকে। তার মা বকা দিলে সে স্কুলে যায়। দ্বিতীয় ক্লাশের পরে অসুস্থ হলে সে ছুটি নিয়ে বাড়িতে এসে নিজ ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। আফান মোল্লার বাড়ি কুষ্টিয়া শহরে সে গত ১০ বছর আগে ভাটপাড়া গ্রামে আসে কাজ করতে, পরে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে। এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: