কালীগঞ্জ থানা পুলিশের সফল অভিযানে মাদক সম্রাজ্ঞী চায়না সহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি :
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে আলোচিত নারী মাদক ব্যবসায়ী চায়না বেগমসহ ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক। ইয়াবা ট্যাবলেট ও ফেন্সিডিল উদ্ধার। শনিবার (২৫ জানুয়ারি-২০২০) রাত ৮ টার সময় কালীগঞ্জ থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে কালীগঞ্জের গান্না রোডের সিও এনজিওর সামনে থেকে আলোচিত মাদক সম্রাজ্ঞী চায়না বেগম (৩৮) কে আটক করা হয়। এ সময় তার নিকট থেকে ৩৬ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়। আটক নারী এই মাদক ব্যবসায়ীর নামে কালীগঞ্জ থানায় ৭ টিরও অধিক মাদক মামলা রয়েছে। সে কালীগঞ্জ শহরের আড়পাড়া (নদিপাড়া) গ্রামের আবদুস সালামের স্ত্রী। তার বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। একই দিনে সন্ধ্যা ৬ টার সময় পৃথক আরেক অভিযানে কালীগঞ্জ উপজেলার কাদিপুর গ্রামে থেকে ১ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডু উপজেলার চটকা বাড়িয়া গ্রামের আবদুল আজিজের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী হোসেন আলী (৩৫) এবং একই উপজেলার পাখিমারা (ভায়না) গ্রামের আনোয়ার চৌধুরীর ছেলে নাজমুল চৌধুরী (২৫) কে আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি মুহাঃ মাহফুজুর রহমান মিয়া বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ কালীগঞ্জ গান্না রোডের সিও এনজিও সামনে অভিযান চালিয়ে ৩৬ বোতল ফেন্সিডিল সহ আড়পাড়া (নদিপাড়া) গ্রামের আলোচিত মাদক সম্রাজ্ঞী চায়না বেগমকে আটক করা হয়। সে দীর্ঘদিন ধরে কালীগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে মাদক ব্যবসা করে আসছিল। তার নামে কালীগঞ্জ থানায় ৭ টিরও অধিক মাদক মামলা রয়েছে। সে ইতোপূর্বে একাধিক বার মাদকসহ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে। একই দিন পৃথক আরেক অভিযানে উপজেলার কাদিপুর গ্রাম থেকে ১ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ হরিনাকুন্ডু উপজেলার চটকা বাড়িয়া গ্রামের আবদুল আজিজের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী হোসেন আলী এবং একই উপজেলার পাখিমারা (ভায়না) গ্রামের আনোয়ার চৌধুরীর ছেলে নাজমুল চৌধুরীকে আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে কালীগঞ্জ থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার আটক আসামিদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: