অসৎ ব্যবসায়ীদেরকে অপারেশন করে ডাস্টবিনে ফেলে দেয়া হবে : র‌্যাব মহাপরিচালক

র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ । ছবি সংগৃহীত।

ক্রাইম পেট্রোল ডেস্ক : র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেছেন, ‘কিছু অসৎ ব্যবসায়ীর জন্য বাজারে মূল্য বাড়ছে।তাদেরকে আমরা সার্জারি করে আলাদা করে দেব।এদেরকে অপারেশন করে ডাস্টবিনে ফেলে দেয়া হবে। যারা ভেজাল করে তারা খুনি। খুন করলে যদি ফাঁসি হয়, যে খাদ্যে ভেজাল মেশায় তারও ফাঁসি হতে হবে।’

মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে দোকান মালিক সমিতির আয়োজনে ‘মিতব্যয়ী হয়ে পণ্য ক্রয় ক্যাম্পেইন’ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

এই অপরাধে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে নিরাপদ খাদ্য আইন-২০১৩ সংশোধন করারও দাবি জানান বেনজীর। এ জন্য অনুষ্ঠানে উপস্থিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, ‘যাতে দেশের মাটিতে কেউ খাদ্যে ভেজালের মতো দুঃসাহস না দেখাতে পারে।’

মাত্রাতিরিক্ত মুনাফা করার প্রবণতা ছাড়তে ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, ‘রমজান আসলে পণ্যের দাম বাড়বে এই সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এখন থেকে রমজান আসবে, পণ্য মূল্য কমবে। সেটা এক টাকা হলেও কমবে। ব্যবসায়ীরা এখন অনেক সুসংগঠিত। বর্তমান সরকার ব্যবসাবান্ধব সরকার।

তিনি বলেন, এই সরকারের আমলে যদি বাজার নিয়ন্ত্রণ না হয় তাহলে কবে হবে? আসেন আমরা আজ থেকে শুরু করি। কেউ কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ দিব না। খুচরা বিক্রেতা দোষ দেয় পাইকারি বিক্রেতাকে, পাইকারি বিক্রেতা বলবে সরবরাহকারী বাড়িয়েছে কোথাও অন্যায্যভাবে উদেশ্যপ্রণোদিতভাবে দাম বাড়ালে আমাদের বলবেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ঢাকা উত্তর সিটি মেয়র (ডিএনসিসি) আতিকুল ইসলাম বলেন, বিশ্বের সব জায়গায় রমজান এলে পণ্যের দাম কমে, আমাদের দেশে বেড়ে যায়। আবার এই রমজানে খাদ্যে ভেজাল নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করা লাগে। এই সংস্কৃতি থেকে আমাদের বেরিয়ে আসার সময় এসেছে। এখন রমজান মাস আসা মানেই পণ্যের দাম কমতে হবে।

পরিমিত ক্রয় ক্যাম্পেইন প্রোগ্রামে মাত্র ১৫০ টাকায় দু’দিনের ইফতারের কাঁচাবাজার দেয়া হয়। যার মধ্যে রয়েছে শসা ৫০০ গ্রাম, বেগুন ৫০০ গ্রাম, লেবু ৪টি, আলু ১ কেজি, পেঁয়াজ ১ কেজি, কাঁচামরিচ ৩০০ গ্রাম, টমেটো ৫০০ গ্রাম এবং গাজর ৫০০ গ্রাম।

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও মহানগর দোকান মালিক সমিতির তৈৗফিক এহেসানের পরিচালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন এফবিসিসিআই’র সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ, ক্যাব সভাপতি গোলাম রহমান প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
%d bloggers like this: